কেউ অশান্তি সৃষ্টি করলে এক বিন্দুও ছাড় দেওয়া হবে না লংগদু জোন কমান্ডার


প্রকাশের সময় : ডিসেম্বর ২, ২০২২, ১০:০৪ অপরাহ্ন / ৪৩৫
কেউ অশান্তি সৃষ্টি করলে এক বিন্দুও ছাড় দেওয়া হবে না লংগদু জোন কমান্ডার

 

আরাফাত হোসেন বেলাল লংগদু

লংগদু সেনাজোন এলাকায় কেউ অশান্তি সৃষ্টি করলে এক বিন্দুও ছাড় দেওয়া হবে না। সেনাবাহিনী সব সময় শান্তি, উন্নয়ন ও সর্বদা নিরাপত্তায় নিয়োজিত রয়েছে।
শুক্রবার (২ ডিসেম্বর) লংগদু সেনা জোন তেজস্বী বীর এর আয়োজনে শান্তি চুক্তির ২৫ বছর পূর্তি উপলক্ষে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন লংগদু জোন অধিনায়ক লে: কর্নেল জনাব মোঃ হিমেল মিয়া (পিএসসি) এসব কথা বলেন৷তিনি আরও বলেন, বর্তমান সরকার পাহাড়ে একের পর এক উন্নয়ন করে যাচ্ছে। উন্নয়নের এই ধারা অব্যাহত রাখতে আসুন আমরা সকলে বিভেদ ভুলে গিয়ে পার্বত্য এলাকায় ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করি।পার্বত্য শান্তি চুক্তির ২৫ বছর পূর্তি উদযাপন উপলক্ষে এবারের মূল প্রতিপাদ্য বিষয় ছিল “ঐক্যের মাঝে শান্তি পাই, পাহাড়ী বাঙালী ভাই ভাই।”চুক্তি স্বাক্ষরের ২৫তম বর্ষপূর্তি উদযাপন উপলক্ষে লংগদু সেনা জোন তেজস্বী বীর লংগদু জোনের আয়োজনে বাদ্যযন্ত্র সহকারে বর্ণাঢ্য র‍্যালী ও এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।লংগদু উপজেলা মাঠ থেকে র‍্যালীর উদ্বোধন করেন। এরপর বর্ণিল সাজে সজ্জিত হয়ে নানা শ্রেণীর পেশার মানুষের উপস্থিতিতে র‍্যালীটি লংগদু উপজেলার মুল সড়ক প্রদক্ষিণ করে বাইট্টাপাড়া বাজারে এসে শেষ হয়।এতে উপস্থিত ছিলেন জোন উপ অধিনায়ক মেজর রিয়াজ আহম্মেদ এ্যডজুটেন্ট ক্যাপ্টেন ইহসানুল হক, আরএমও মো: জোবায়ের হোসেন এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) আকিব ওসমান সহকারী পরিচালক,লংগদু ৩৬ আনসার ব্যাটালিয়ান প্রদীপ চন্দ্র দত্ত লংগদু উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল বারেক সরকার লংগদু থানা অফিসার ইনচার্জ ইকবাল উদ্দিন লংগদু উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মীর সিরাজুল ইসলাম ঝান্টু মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান আনোয়ার বেগম সহ স্কুল শিক্ষার্থী, শিক্ষক, মুক্তিযোদ্ধা, পাহাড়ী-বাঙালীসহ এলাকার সর্বস্তরের লোকজন।এ সময় জনপ্রতিনিধি, হেডম্যান, কারবারি, স্কুল শিক্ষক, শিক্ষার্থীসহ লংগদু জোনের সকল পদবির সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।