যে ভুুলের কারণে জামাতে নামাজ হয় না


প্রকাশের সময় : জুলাই ৫, ২০২৪, ৫:২১ অপরাহ্ন / ১৭
যে ভুুলের কারণে জামাতে নামাজ হয় না

মুফতি মাওলানা শামীম আহমেদ,
সাংবাদিক, আলোচক বাংলাদেশ বেতার ও বাংলাদেশ টেলিভিশন, ঢাকা।

পুরুষের জন্য পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ জামাতে আদায় করার চেষ্টা করতে হবে। জামাতে নামাজ আদায় করার তাগিদ দিয়ে আল্লাহ বলেন, রুকুকারীদের সঙ্গে রুকু করো। (সুরা বাকারা, আয়াত: ৪৩)

রাসুলুল্লাহ বলেছেন, জামাতে নামাজ পড়লে একাকী নামাজের তুলনায় সাতাশ গুণ বেশি সওয়াব পাওয়া যায়। (বুখারি, হাদিস: ৬১৯) জামাতের সঙ্গে নামাজ আদায় করতে গিয়ে সাধারণত যেসব ভুল অনেকে করে থাকেন।

কাতার সোজা না করা
জামাতের সঙ্গে নামাজ আদায়ের প্রথম ধাপ হলো কাতার সোজা রেখে দাঁড়ানো। এটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ। রাসুলুল্লাহ (সা.) বলেছেন, ‘তোমরা অবশ্যই তোমাদের কাতার সোজা করে দাঁড়াবে, অন্যথায় আল্লাহ তোমাদের মাঝে শত্রুতা ও মতভিন্নতা সৃষ্টি করে দেবেন। (বুখারি, হাদিস: ৭১৭)

হজরত উমর (রা). নামাজের কাতারগুলো সোজা ও ঠিকঠাক করার জন্য কিছু লোককে দায়িত্ব দিয়ে রাখতেন। যতক্ষণ না কাতার পুরোপুরি সোজা হতো, ততক্ষণ তিনি তকবির বলতেন না। (তিরমিজি)

হাদিসে কাতার সোজা না রাখার ব্যাপরে কঠোর সতর্কবাণী উচ্চারণ করা হয়েছে। কাতার সোজা করার সহজ পদ্ধতি হলো মসজিদে কাতারের জন্য যে দাগ দেওয়া থাকে, পায়ের গোড়ালি সেখানে রাখা। সবার পায়ের পেছনের অংশ একই রেখায় থাকলে আপনা–আপনিই কাতার সোজা হয়ে যাবে। দাগে পায়ের গোড়ালি রাখাই কাতার সোজা করার পদ্ধতি।