রংপুরে বিএনপির সমাবেশ জনসমুদ্রে পরিনত


প্রকাশের সময় : অক্টোবর ২৯, ২০২২, ৯:০৬ অপরাহ্ন / ৪১৯
রংপুরে বিএনপির সমাবেশ জনসমুদ্রে পরিনত

 

রিয়াজুল হক সাগর রংপুর জেলা প্রতিনিধিঃ
সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন থাকার পরেও রংপুরের সমাবেশ পরিণত স্লোগান-মিছিলে জনসমুদ্রে পরিনত হয়েছে।বিএনপির চেয়ারপারসন্ বেগম খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তি, নির্বাচনকালীন তত্ত্বাবধায়ক সরকার, পুলিশের গুলিতে ৫ নেতাকর্মী নিহতের প্রতিবাদে রংপুর বিভাগীয় গণসমাবেশের আগে পরিবহন ধর্মঘট ডাকায় সারাদেশের সাথে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছিল রংপুর। কিন্ত অচলাবস্থা ভেঙ্গে শেষ পর্যন্ত বিএনপির বিভাগীয় সমাবেশে বহু মানুষের সমাগম হয়েছে।
শনিবার সকাল থেকেই সকাল থেকেই রংপুর শহর পরিণত হয় মিছিলের নগরীতে। শহরের রাস্তাজুড়ে বিএনপি নেতাকর্মীদের ঢল নামে। মিছিল আর স্লোগানে মুখর পুরো শহর। এ সময় নেতাকর্মীদের হাতে জাতীয় পতাকা,অনেকের হাতে আবার দলের প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমান,চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া, দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানসহ কেন্দ্রীয় ও স্থানীয় নেতৃবৃন্দের ছবি সংবলিত প্ল্যাকার্ড হাতে মিছিল নিয়ে আসেন সমাবেশস্থলে। কেউ কেউ নির্বাচনী প্রতীক ধানের শীষ নিয়ে আসছেন সমাবেশে।
মিছিলগুলোতে সরকারের পদত্যাগের দাবিতে বিভিন্ন শ্লোগানও দেয়া হচ্ছে।
এর আগে ৩৬ ঘন্টার পরিবহন ধর্মঘট ডাকে জেলা মোটর মালিক সমিতি। নিকট দূরত্বের অধিকাংশই এসেছেন হেঁটে, আর দূরের নেতাকর্মীরা ট্রেনের পাশাপাশি বিভিন্ন ছোট ছোট যানবাহনের মাধ্যমে আসছেন সমাবেশস্থলে।
বিএনপির নেতারা বলছেন, পূর্বের সমাবেশের অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগিয়ে সমাবেশের ৩ দিন আগে থেকেই রংপুরে আসে উত্তরাঞ্চলের বিএনপির নেতাকর্মীরা। শুক্রবার (২৮ অক্টোবর) রাত ৮টার পরেই কালেক্টরেট ঈদগাহ ময়দান এলাকা কানায় কানায় মানুষে পূর্ণ হয়ে যায়। রাস্তায় অবস্থান নেওয়ার জন্য মাদুর, বালিশ, তাবু সঙ্গে নিয়ে এসেছেন।অনেকেই সমাবেশ মাঠেই রাত্রী যাপন করেন।
তবে আশেপাশের এলাকার মানুষ সমাবেশের দিন লম্বা মিছিল নিয়ে সমাবেশস্থলে ঢুকছেন।
রংপুর শহর থেকে প্রায় দেড়শ কিলোমিটার দূরের পঞ্চগড়ের তেতুলিয়া থেকে বিএনপি নেতা তপন মাহমুদের নেতৃত্বে একশো মোটর সাইকেলের একটি বহর আসে। তিনি জানান, যানবাহন না পাওয়ায় তারা বাইকযোগেই এসেছেন এবং রাস্তায় অনেককেই চার্জার ভ্যান,অটো,রিক্সা ও বাইসাইকেল যোগে আসছেন।
তবে সমাবেশে আসতে নেতাকর্মীদের বাধা দেয়ার অভিযোগ তুলেছেন বিএনপি। তারা বলছেন শনিবার রংপুরের বিভিন্ন জেলা-উপজেলা থেকে লোক আসার সময় রাস্তায় পুলিশ তাদের আটকিয়ে হয়রানি করছে।
বিএনপি’র কেন্দ্রীয় ভাইস চেয়ারম্যান ডা.এ জেড এম জাহিদ হোসেন বলেন সরকারের সমাবেশ বানচাল করার নীল নকশা বাস্তবায়ন করেছে মোটর মালিক সমিতি ।তারা ধর্মঘট দিয়ে বিএনপি নেতাকর্মী সহ সাধারণ মানুষদের সমাবেশে আসতে বাধাগ্রস্থ করার পরিকল্পনা করেছে। কিন্তু সকল বাধা ডিঙ্গিয়ে রংপুরে স্মরণকালের সবচাইতে বেশি মানুষের জমায়েত হয়েছে।