আদিতমারী উপজেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি হলেন আওয়ামী লীগের সভাপতি; প্রতিবাদে জাতীয় মহাসড়ক অবরোধ


প্রকাশের সময় : নভেম্বর ২০, ২০২২, ১১:২৫ পূর্বাহ্ন / ৪২০
আদিতমারী উপজেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি হলেন আওয়ামী লীগের সভাপতি; প্রতিবাদে জাতীয় মহাসড়ক অবরোধ

মোঃ মাসুদ রানা রাশেদ, লালমনিরহাট জেলা প্রতিনিধি:

লালমনিরহাটের আদিতমারী উপজেলা বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল-বিএনপি আদিতমারী উপজেলা শাখার সাবেক সভাপতি ও ভেলাবাড়ী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আলীকে সভাপতি ও রফিকুল আলমকে সাধারণ সম্পাদক করে ওই উপজেলা আওয়ামী লীগের ৭১সদস্য বিশিষ্ট উপজেলা কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে।

শনিবার (১৯ নভেম্বর) দুপুরে লালমনিরহাট জেলার তিস্তা ব্যারাজের অবসর হলরুমে লালমনিরহাট জেলা আওয়ামী লীগের মাসিক সভায় এ কমিটি ঘোষণা করা হয়।

এর আগে ৮ অক্টোবর আদিতমারী জিএস মডেল উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজ মাঠে কমিটি ঘোষণা ছাড়াই উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন সমাপ্ত হয়।

এদিকে ওই কমিটি বাতিল করে নতুন কমিটি গঠনের দাবীতে শনিবার (১৯ অক্টোবর) সন্ধ‌্যায় আদিতমারী উপজেলা আওয়ামী লীগের দলীয় অফিস কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন, বিক্ষোভ সমাবেশ শেষে বড়বাড়ী-লালমনিরহাট-বুড়িমারী জাতীয় মহাসড়ক অবরোধ করেন বিক্ষুপ্ত আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা।

ওই বিক্ষোভ সমাবেশে আদিতমারী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী, শহীদ সুরুজের পুত্র ও কমলাবাড়ী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম‌্যান মাহমুদ ওমর চিশতি বলেন, টাকার বিনিময় বিএনপির সাবেক সভাপতিকে শুধু আওয়ামী লীগের সভাপতি করা হয়নি, ওই কমিটিতে স্থান পেয়েছেন এমন অনেকেই আছেন যারা বিএনপি’র রাজনীতির সাথে জড়িত ছিলেন।

জানা গেছে, দীর্ঘ ১২বছর পরে গত ৮ অক্টোবর উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনের আয়োজন করে উপজেলা আওয়ামী লীগ। আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য সাবেক মন্ত্রী শাহাজান খান প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। প্রথমার্ধের আলোচনা সভা শেষে আগের কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা দিয়ে দ্বিতীয় অধিবেশন শুরু হয়।

দ্বিতীয় অধিবেশনে সভাপতি ও সম্পাদক পদে একাধিক প্রার্থী থাকায় সমঝোতা করতে ব্যর্থ হন কেন্দ্রীয় নেতারা। উপজেলা আওয়ামী লীগের দুইটি গ্রুপের দ্বন্দ্ব আরও প্রকাশ্য রূপ লাভ করে। যার একটি নেতৃত্ব দিচ্ছেন সমাজকল্যাণ মন্ত্রী নুরুজ্জামান আহমেদ এমপি ও অপর গ্রুপে নেতৃত্ব দিচ্ছেন ব্যবসায়ী-শিল্পপতিদের শীর্ষ সংগঠন এফবিসিসিআইয়ের সাবেক পরিচালক, লালমনিরহাট জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মোঃ সিরাজুল হক।

দুই গ্রুপকে একত্রিত করে সমাজকল্যাণ মন্ত্রী গ্রুপের সাবেক বিএনপি নেতা মোহাম্মদ আলীকে সভাপতি এবং সিরাজুল হকের গ্রুপের ছাত্রনেতা কমলাবাড়ী ইউপি চেয়ারম্যান মাহমুদ ওমর চিশতিকে সম্পাদক করার প্রস্তাব দিলে তা নাকচ করে মন্ত্রী নুরুজ্জামান আহমেদ এমপি। অবশেষে কমিটি ঘোষণা না করে ওই আওয়ামী লীগের সম্মেলন স্থগিত করেন কেন্দ্রীয় নেতারা।

এ ঘটনায় ওই দিন রাতভর লালমনিরহাট সার্কিট হাউসে কেন্দ্রীয় নেতারা দুই গ্রুপকে সমঝোতার চেষ্টা করে ব্যর্থ হন।

অবশেষে পরদিন সকালে ক্ষুব্ধ হয়ে লুঙ্গি পড়েই লালমনিরহাট ত্যাগ করেন প্রেসিডিয়াম সদস্য শাহাজান খান। পরে বিষয়টি আওয়ামী লীগের সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দপ্তরে পৌঁছে।

অবশেষে ১৯ নভেম্বর দুপুরে লালমনিরহাটের তিস্তা ব‌্যারাজ অবসর হলরুমে লালমনিরহাট জেলা আওয়ামী লীগের সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় আদিতমারী উপজেলা আওয়ামী লীগের ৭১সদস্যের নতুন কমিটি ঘোষণা করেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. মতিয়ার রহমান। সেই কমিটিতে সভাপতি পদে নির্বাচিত করা হয় আদিতমারী উপজেলা বিএনপি’র সাবেক সভাপতি ও ভেলাবাড়ী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আলীকে।

এ সময় লালমনিরহাট জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোতাহার হোসেন এমপি এবং সমাজকল্যাণ মন্ত্রী নুরুজ্জামান আহমেদ এমপিসহ লালমনিরহাট জেলা আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে পদ না পেয়ে বঞ্চিত সিরাজুল হক গ্রুপের নেতাকর্মীরা উপজেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয়ে শনিবার (১৯ নভেম্বর) সন্ধ‌্যায় আদিতমারী উপজেলা আওয়ামী লীগের দলীয় অফিসে সংবাদ সম্মেলন, বিক্ষোভ সমাবেশ শেষে বড়বাড়ী-লালমনিরহাট-বুড়িমারী জাতীয় মহাসড়ক অবরোধ করেন বিক্ষুপ্ত আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা।

লালমনিরহাট জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মোতাহার হোসেন এমপি সাংবাদিকদের বলেন, কেন্দ্রীয় ও জেলা কমিটি’র নেতারাসহ তৃণমুলের নেতা-কর্মীদের মতামত নিয়ে কমিটি গঠন করা হয়েছে।