কাজিপুরে শিক্ষক এর বিরুদ্ধে নারী ধর্ষণের অভিযোগ


প্রকাশের সময় : মে ১৭, ২০২৪, ৯:০৪ অপরাহ্ন / ৪৬৭
কাজিপুরে শিক্ষক এর বিরুদ্ধে নারী ধর্ষণের অভিযোগ

কাজিপুর (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি:-

সিরাজগঞ্জের কাজিপুরে প্রতিবেশী এক নারী’কে ধর্ষণ করলেন কারিগরি শিক্ষক। এই ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। শুক্রবার ১৭ মে  সকালে এবিষয়ে কাজিপুর থানায় এক‌টি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন ভুক্তভোগী নারী নিজে।

অভিযোগ সুত্রে জানা যায়, মা মারা যাবার পর অসুস্থ বাবাকে, দেখভাল করার জন্য স্বামীর অনুমতি নিয়ে বাবার বাড়িতে আসেন মেয়ে। বাবাকে সুস্থ করতে চিকিৎসার পাশাপাশি সেবা করতে থাকেন সিরাজগঞ্জের কাজিপুর উপজেলার চালিতাডাঙ্গা ইউনিয়নের ভবানীপুর গ্রামের জয়নাল আবেদিনের মেয়ে জনি খাতুন (৩০)। বাবার বাড়িতে আসার পর থেকে’ই পাশের বাড়ির তফিজ উদ্দিনের ছেলে, আব্দুর রশিদ  আসা যাওয়া শুরু হয়, আব্দুর রশিদ ভবানীপুর টেকনিক্যাল ইনস্টিটিউটের সহকারী শিক্ষক হওয়ায় বিভিন্ন সময় বিভিন্ন অজুহাতে আসতো জনি খাতুনদের বাড়িতে।

এরই মাঝে একদিন বাবা জয়নাল আবেদিন ওষুধ আনতে বাজারে গেলে, ওতপেতে থাকা আব্দুর রশিদ জনিদের বাড়িতে আসে এবং জনি খাতুন বাড়ির উঠান ঝাড়ু দেওয়া অবস্থায় জোর করে ঘরের ভিতরে নিয়ে গিয়ে তার ইচ্ছার বিরুদ্ধে ধর্ষণ করে এবং মোবাইল ফোনে তা ভি‌ডিও ধারন করে রাখে।

পরবর্তী সময়ে সেই ভিডিও দিয়ে ব্লাকমেইল করতে থাকে আব্দুর রশিদ। এবং বার বার গোপন ভি‌ডিওর ভয় দেখিয়ে ধর্ষণ করতে থাকে জনি খাতুন’কে। একপর্যায়ে ঘটনাটি জানাজানি হলে জনি খাতুন ও তার অভিভাবকরা এলাকার মুরুব্বীদের জানিয়েও বিচার না পেয়ে বাধ্য হয় প্রশাসনের দ্বারস্থ হয়।

এবিষয়ে অভিযুক্ত আব্দুর রশিদের সাথে বারবার যোগাযোগ করেও পাওয়া যায়নি,

ভবানীপুর টেকনিক্যাল ইনস্টিটিউটের প্রিন্সিপাল আব্দুর রাজ্জাক বলেন, আমি বিষয়টা শুনেছি, তবে পাপ যে করেছে তার শাস্তি হবে আমিও চাই, এই ঘটনার সঠিক বিচার হোক।

কাজিপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শহিদুল ইসলাম জানান এই ঘটনায় একটি অভিযোগ পেয়েছি, তদন্ত করে যথাযত আইনি ব্যাবস্থা গ্রহণ করা হবে।