গঠিত হ’ল বাংলাদেশের বেতার শ্রোতা ক্লাব প্রতিনিধিদের নিয়ে এ্যাসোসিয়েশন অব রেডিও লিসেনার্স ক্লাব বাংলাদেশ (এআরএলসিবি)


প্রকাশের সময় : সেপ্টেম্বর ১৬, ২০২৩, ৯:০৩ পূর্বাহ্ন / ১৬৭২
গঠিত হ’ল বাংলাদেশের বেতার শ্রোতা ক্লাব প্রতিনিধিদের নিয়ে এ্যাসোসিয়েশন অব রেডিও লিসেনার্স ক্লাব বাংলাদেশ (এআরএলসিবি)

এম. জুলফিকার আলী ভূট্টো, বিশেষ প্রতিনিধি-

এক আনন্দ ঘন, উৎসব মুখর অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে ঢাকায় “এ্যাসোসিয়েশন অব রেডিও লিসেনার্স ক্লাব বাংলাদেশ”(এআরএলসিবি)’র আত্মপ্রকাশ হ’ল। বাংলাদেশের বিভিন্ন জেলায় হাজারো শ্রোতা ক্লাব এবং শ্রোতা রয়েছে, সকল আগ্রহী শ্রোতা ক্লাব ও শ্রোতাদেরকে একত্রিত করে এক ছাতায় নিয়ে আসা আর বিভিন্ন আন্তর্জাতিক বেতার ও বাংলাদেশ বেতারের প্রচারনা, শ্রোতা সংখ্যা বৃদ্ধি এবং তাদের ক্লাব কার্যক্রমের প্রচারনার পাশাপাশি সামাজিক নানা কার্যক্রমে অংশগ্রহণ করাই এই এ্যাসোসিয়েশন এর মূল লক্ষ্য৷

১৫ সেপ্টেম্বর-২০২৩ শুক্রবার রাজধানী ঢাকার মিরপুরে সিটি মহল কনভেনশন সেন্টারে আনুষ্ঠানিক ভাবে “এ্যাসোসিয়েশন অব রেডিও লিসেনার্স ক্লাব বাংলাদেশ” (এআরএলসিবি) এর কার্যক্রম শুরু হ’ল৷

এ্যাসোসিয়েশন গঠনের নিমিত্তে আহবায়ক কমিটির পক্ষে ডি-এক্সার শাহাদত হোসেন এর সভাপতিত্বে প্রথম পর্বের আয়োজন শুরু হয় সকাল ১১ টা ২০ মিনিটে৷ সারা দেশ থেকে আগত ৪০ জন শ্রোতা ক্লাব প্রতিনিধির আসন গ্রহণের পর ক্ষুদে শ্রোতা সোহেল মুরাদ স্নিগ্ধর কোরআন তেলাওয়াতের মাধ্যমে অনুষ্ঠান শুরু হয়৷ শ্রোতা ক্লাব প্রতিনিধিদের সংক্ষিপ্ত পরিচিতি পর্বের পরে এ্যাসোসিয়েশন গঠনের উদ্দেশ্য, লক্ষ্য, কার্যক্রম এবং কার্যক্রম বাস্তবায়নের পরিকল্পনা উপস্থাপন করেন কিশোরগঞ্জের শাহাদত হোসেন, ঢাকার প্রকৌশলী মো. মঞ্জুরুল আলম রিপন, ঢাকা সেনানিবাসের সোহেল রানা হৃদয়, সিলেটের মো. চাঁন মিয়া এবং ঝিনাইদহের মো. সাজ্জাদ হোসেন রিজু৷

সংগঠনের নাম “এ্যাসোসিয়েশন অব রেডিও লিসেনার্স ক্লাব বাংলাদেশ” (এআরএলসিবি) নামকরণের ব্যাপারে উপস্থিত শ্রোতা সংগঠকদের মতামত গ্রহণ করা হয়৷ সকল উপস্থিত শ্রোতা ক্লাব প্রতিনিধি এবং রেজিস্ট্রেশনকৃত অনুপস্থিত অধিকাংশ শ্রোতাদের মতামতের ভিত্তিতে সংগঠনের নাম “এ্যাসোসিয়েশন অব রেডিও লিসেনার্স ক্লাব বাংলাদেশ” নির্ধারণ করা হয়৷

সংগঠনের নামকরণ এবং সংগঠনটি গঠনের ব্যাপারে বিস্তারিত মতামত তুলে ধরেন গাইবান্ধার আমিনুল ইসলাম রানা, বগুড়ার আনোয়ার পারভেজ, শরিয়তপুরের সাইদুর রহমান সাফিন, ফরিদপুরের এম. জামাল আহম্মেদ সুবর্ণ এবং যশোরের শ্রোতাবন্ধু মুজিবুল হক৷

পরবর্তী পর্বে আহবায়ক কমিটির পক্ষ থেকে সবার সম্মতিক্রমে প্রকৌশলী মো. মঞ্জুরুল আলম রিপন নবগঠিত “এ্যাসোসিয়েশন অব রেডিও লিসেনার্স ক্লাব বাংলাদেশ” এর কার্যকরী কমিটির সভাপতি হিসেবে কিশোরগঞ্জের গুরুদয়াল সরকারী কলেজের ভূগোল ও পরিবেশ বিজ্ঞান বিভাগের সহকারী অধ্যাপক, রেডিও তেহরান বাংলা বিভাগের মনিটর, প্রখ্যাত ডি-এক্সার মো. শাহাদত হোসেনকে সভাপতি ঘোষণা করেন৷ এরপর নব্য সভাপতি উপস্থিত সকল শ্রোতা ক্লাব প্রতিনিধির সম্মতিতে কার্যকরী পরিষদের অন্য সদস্যদের নাম প্রস্তাব করেন এবং একে একে সদস্য নির্বাচিত হন৷ নির্বাচিত অন্য সদস্যরা হলেন:

সহ-সভাপতি-প্রকৌশলী মো. মঞ্জুরুল আলম রিপন (ঢাকা)
সেক্রেটারী-মো. সোহেল রানা হৃদয় (ঢাকা) সহঃ সেক্রেটারী-মো. সাজ্জাদ হোসেন রিজু (ঝিনাইদহ)
সাংগঠনিক সম্পাদক-মো. হুসাইন মুসা (নরসিংদী)
সহঃ সাংগঠনিক সম্পাদক-মো. চাঁন মিয়া (সিলেট)
মহিলা বিষয়ক সম্পাদক-মোছা. রওশন আরা লাবনী (কুষ্টিয়া) সহঃ মহিলা বিষয়ক সম্পাদক-মিতু ফারিয়া (নরসিংদী) অর্থ সম্পাদক-মো. নাজমুল ইসলাম (চুয়াডাঙ্গা)
সহঃ অর্থ সম্পাদক-এ.টি.এম আতাউর রহমান রঞ্জু (রংপুর)
প্রচার সম্পাদক- মো. আনোয়ার পারভেজ (বগুড়া)
সহঃ প্রচার সম্পাদক- এম. জামাল আহম্মেদ সুবর্ণ (ফরিদপুর) অনুষ্ঠান বিষয়ক সম্পাদক-মুহাম্মদ জহুরুল ইসলাম (জামালপুর) এবং সহঃ অনুষ্ঠান বিষয়ক সম্পাদক- আমিনুল ইসলাম রানা (গাইবান্ধা)

এ ছাড়া ৩ (তিন) সদস্য বিশিষ্ট একটি উপদেষ্টা পরিষদ গঠন করা হয়েছে, যেখান রয়েছেন চুয়াডাঙ্গার বিখ্যাত ডি-এক্সার, প্রবাহ অনলাইন ডট কম পত্রিকার সম্পাদক মোহাম্মদ আবদুল্লাহ, নরসিংদীর প্রবাসী শ্রোতাবন্ধু মো. শাহজালাল হাজারী এবং ডি-এক্সার নগরী খ্যাত রাজশাহীর ডি-এক্সার আশিক ইকবাল টোকন৷

আয়োজনে আরও যারা উপস্থিত, ছিলেন সাইদুর রহমান সাফিন (শরিয়তপুর), সাইদুল ইসলাম (লালমনিরহাট), মিনহাজ উদ্দিন (ময়মনসিংহ), মাসুদুর রহমান সোহাগ (চুয়াডাঙ্গা), সিরাজুল ইসলাম (বরগুনা), এম. এ জিন্নাহ (ঢাকা), আসাদ হোসেন (সিলেট), মোহাইমিনুর রহমান (ঝিনাইদহ), ওসমান গনি (ঢাকা), আবু সাঈদ (রাজশাহী), রওশন মুরাদ মুগ্ধ ও সোহেল মুরাদ স্নিগ্ধ (ঢাকা), তাহমিদুল আলম অরিন (নাটোর), তোয়াসিন হাসান (নারায়ণগঞ্জ), ওবায়দুল সামি (যশোর), রাশেদ আহম্মেদ (ঢাকা), মোছলিমা আক্তার (ঢাকা), আলো আহম্মেদ (ঢাকা), আফ্রিদা মেহজাহিন জেরিন ও আরিফা আলম দোলন (নাটোর), এস.টি তাইজুল ইসলাম (নরসিংদী), খন্দকার এরফান আলী বিপ্লব (ঢাকা), এম. আলম (ঢাকা) এবং সুবর্ণ আলোর ছেলে আদর আহম্মেদ সুখ প্রমুখ৷

২০২৪-২০২৫ সালের জন্য এই কমিটি ঘোষণা করা হয় তবে বিশেষ প্রয়োজনে কমিটিতে পরিবর্তন, পরিবর্ধন করা হতে পারে৷ নানা পরিকল্পনা আর ভালো কাজে সাথে থাকার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন সকল উপস্থিত ক্লাব প্রতিনিধিরা।

রেজিস্ট্রেশনকৃত অনুপস্থিত ড. সালেহ মতিন, শরিফা আকতার পান্না, আবু তাহের, বিধান চন্দ্র ঠিকাদার, মো. বাবুল হোসেন, মো. ওসমান গণি, এম. শামসুল ইসলাম, সালাহউদ্দিন ডলার, এম.এ বারিক, এ. কে. এম নুরুজ্জ্বামান, মো. আইনুল হক, সৈয়দ আসিফুল ইসলাম, জাহাঙ্গীর আলম, শরীফ মিয়া, আরিফ মাহমুদ পরশ, এম. জুলফিকার আলী ভুট্টো, মো. আজহারুল ইসলাম তামিম, আইনুল হক হৃদয়, মো. আতিকুল ইসলাম, মো. আজিনুর রহমান, মো. শাহিন আলী, মো. সাগর মিয়া, মো. সুজন ইসলাম, মো. মাসুদ রানা খান, মো. মোখলেছুর রহমান, কাজী রুহুল আমিন, রাজিব কুমার রায়, সেলিম রাজ, আসাদুল্লাহ, মিয়া মোহাম্মদ সিদ্দিক, মো. শাহাবুল ইসলাম শাওন, মাহমুদ আয়ান উদ্দিন সরকার, মো. আনোয়ার সাদাত চৌধুরী, এম.এ জিন্নাহ, আব্দুল কালাম প্রমুখ ক্লাব প্রতিনিধিদের ভার্চুয়াল কনফারেন্সের মাধ্যমে সবার সম্মতিক্রমে ফাউন্ডার মেম্বার হিসেবে গণ্য করা হয়।

সকল ফাউন্ডার মেম্বারগণকে প্রত্যয়ণপত্রসহ উপহার প্রেরণের সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়৷ উপস্থিত সকল শ্রোতা ক্লাব প্রতিনিধিদের জুম্মার নামাজ পর দুপুরের খাবার গ্রহণ করার আহবান জানিয়ে সভাপতি আয়োজনের সমাপ্তী ঘোষণা করেন৷ পুরো অনুষ্ঠানটি সিলেটের বন্ধু মো. চাঁন মিয়ার ফেসবুক প্রোফাইল থেকে লাইভ পরিচালনা করেন সালেমিন আর দক্ষ ফটোগ্রাফার গ্রাফিক্স ডিজাইনার আজমাইন মাহমুদ তাসিন। পুরো অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন “Association of Radio Listeners’ Club Bangladesh” এর সেক্রেটারী মো. সোহেল রানা হৃদয়৷

জুম্মার নামাজ এবং দুপুরের খাবারের পরে অনুষ্ঠানের দ্বিতীয় পর্বে সবার সম্মতিক্রমে “3rd Family Day 2023” পালন করার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়৷

সম্ভাব্য সিডিউল-
তারিখ-২৭ অক্টোবর-২০২৩, শুক্রবার,
স্থান-জাতীয় স্মৃতিসৌধ, সাভার, ঢাকা।
বিস্তারিত খুব শীঘ্রই ঘোষণা করা হবে বলে জানিয়েছেন আয়োজক কর্তৃপক্ষ৷