চাটখিলে ১৮০ ফুট পতাকা নিয়ে ব্রাজিল সমর্থকদের মিছিল


প্রকাশের সময় : নভেম্বর ১৯, ২০২২, ৯:৫১ অপরাহ্ন / ৫৬৮
চাটখিলে ১৮০ ফুট পতাকা নিয়ে ব্রাজিল সমর্থকদের মিছিল

 

 

স্টাফ রিপোর্টোরঃ

আর মাত্র কয়েক দিন পর বিশ্বকাপ ফুটবলের আসর। আগামী ২০ নভেম্বর থেকে কাতারে ফুটবল বিশ্বের শ্রেষ্ঠত্বের লড়াই শুরু হতে যাচ্ছে। বিশ্বকাপের উত্তাপ ছড়িয়েছে বাংলাদেশেও। দেশের ফুটবলপ্রেমীদের বড় একটা অংশ অবশ্য আর্জেন্টিনা ও ব্রাজিলের সমর্থক। প্রিয় দলের প্রতি ভালোবাসা দেখাতে সমর্থকদের মধ্যে উন্মাদনার শেষ নেই। উন্মাদনার এমন নিদর্শন পাওয়া গেল নোয়াখালীর চাটখিল উপজেলার প্রত্যন্ত এক গ্রামে।

শুক্রবার (১৮ নভেম্বর) বিকেলে মিছিলটি উপজেলার মোহাম্মদপুর ইউনিয়নের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে। এ সময় ‘জিতবে এবার ব্রাজিল’ ‘আমরা কারা ব্রাজিল’ শ্লোগানে মুখরিত ছিল।

জানা গেছে, স্থানীয় বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষেরা এই পতাকা তৈরি ও মিছিলের উদ্যোক্তা। এতে তার সঙ্গে সামিল হয় ব্রাজিলের অন্য সব সমর্থকরাও। জনতা বাজার থেকে মিছিলটি বের হয়ে মোহাম্মদপুর ইউনিয়নের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে। জনতা বাজারে ফেরত এসেই শেষ হয় মিছিলটি। ব্রাজিল সমর্থক ও ভক্তরা প্রিয় দলের জার্সি গায়ে ও হাতে পতাকা নিয়ে অংশ নেয় মিছিলে।

মো. ইমন নামের এক সমর্থক বলেন, আমি অনেক জায়গায় গিয়ে ব্রাজিলের মিছিলে অংশগ্রহণ করেছি কিন্তু এত বড় পতাকা কোথাও দেখি নাই। খুব আনন্দ লাগছে দেখে। আমি নিজেও ব্রাজিল এর সমর্থক। এবার ব্রাজিল কাপ নিয়ে ছাড়বেই।

জনতা বাজারের ব্যবসায়ী শংকর চন্দ্র শীল বলেন, নোয়াখালীতে আমরাই প্রথম ১৮০ ফুট পতাকা বানিয়েছি। আগামীতে আরও বড় পতাকা বানাতে চাই। আমরা ফুটবলকে ভালবাসি। পাশাপাশি ব্রাজিল ও নেইমারকে ভালবাসি। আমরা চাই ষষ্ঠ শিরোপা ব্রাজিলের ঘরে উঠবে।

ইয়াসিন হোসেন সবুজ নামের আরেক ব্যবসায়ী বলেন, ব্রাজিল পাঁচ বারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন। ভালবেসে ব্রাজিলের জন্য পতাকা বানালাম। আশাকরি ব্রাজিল এবারও বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন হবে। এই পতাকাকে আমরা ব্রাজিলকে উৎসর্গ করেছি।

আনিস আহমেদ নামের এক ব্যবসায়ী বলেন, ব্রাজিলের এত বড় পতাকা আমি আর কখনো দেখি নাই। আমিসহ এলাকার ছোটবড় সবাই মিলে সমন্বয় করে পতাকাটি বানিয়েছি। ব্রাজিল জিতুক আর আর্জেন্টিনা জিতুক চাই সবাই মিলেমিশে থাকি।

বেলাল হোসেন নামের এক আর্জেন্টিনার সমর্থক বলেন, যদিও আমি আর্জেন্টিনার সমর্থক তবে ব্রাজিলের এত বড় মিছিল দেখে আমার ভাল লেগেছে। আমরাও ব্যতিক্রম কিছু করবো। তবে দিনশেষে আমরা ভাই ভাই। খেলা উপভোগ করবো।