জনসেবার জন্যে এটা মহতী পেশা, তাই এ পেশা বেছে নিয়েছি : হোমিও চিকিৎসক তরিকুল ইসলাম


প্রকাশের সময় : অক্টোবর ২৭, ২০২২, ৮:০৬ অপরাহ্ন / ৩৯৯
জনসেবার জন্যে এটা মহতী পেশা, তাই এ পেশা বেছে নিয়েছি : হোমিও চিকিৎসক তরিকুল ইসলাম

শাহাবুদ্দিন মোড়ল ঝিকরগাছা যশোর :
অসহায় মানুষের পাশে থেকে হোমিও চিকিৎসা দিতে চাই যশোরের ঝিকরগাছা উপজেলার সদর ইউনিয়নের হাড়িয়াদেয়াড়া গ্রামের হোমিও চিকিৎসক মোঃ তরিকুল ইসলাম। হাড়িয়াদেয়াড়া বাজারে হোমিও জগতের একজন সুপরিচিত চিকিৎসক। দীর্ঘদিন ধরে তিনি হোমিও চিকিৎসাসেবা দিয়ে আসছেন। একটা সময় ছিলো যখন মানুষ সাধারণত হোমিও ঔষধের প্রতি তেমন একটা আকর্ষণ বোধ করতো না, কিন্তু সময়ের পরিক্রমায় হোমিও ডাক্তাররা পেশাধারী ও মানুষের সেবার মনোভাব নিয়ে এগিয়ে আসেন তখন মানুষ এ পেশার চিকিৎসার প্রতি বিশ্বাস হয়ে ওঠে। তিনি প্রতিটি গুরুতর রোগীর কাছে মনোযোগ সহকারে সমস্যার কথা শুনে চিকিৎসা দিচ্ছেন। রোগীর প্রেসার এবং ডায়াবেটিস মাপছেন। তার সেবায় চেম্বারে চিকিৎসা নিতে আসা রোগীরা বেশ সন্তুষ্ট। করোনার মধ্যেও নিজের জীবনে ঝুঁকি নিয়ে রোগীর কাছে গিয়ে চিকিৎসা দেওয়া ডাক্তারে সংখ্যা অনেক কম হলেও উনি নিয়মিত রোগীদের সেবা দান করছেন। সে জনসেবার জন্যে এটা মহতী পেশা, তাই এ পেশা বেছে নিয়েছেন বলে জানান।
ঝিকরগাছা উপজেলার সদর ইউনিয়নের হাড়িয়াদেয়াড়া গ্রামের হোমিও চিকিৎসক মোঃ তরিকুল ইসলাম বলেন, ছোট বেলা থেকেই চিকিৎসা সেবার প্রতি আলাদা একটা ঝোঁক ছিলো। জনসেবার জন্যে এটা মহতী পেশা, তাই এ পেশা বেছে নিয়েছি। হোমিওপ্যাথি চিকিৎসার দিন দিন প্রসার ঘটছে। আমি বর্তমানে আগের তুলনায় অনেক বেশি সফল এবং এ চিকিৎসা করে অনেক উৎসাহ বোধ করি। কারণ অনেক জটিল রোগ থেকে রোগীদেরকে রোগ মুক্তি করা সম্ভব হয় আল্লাহর রহমতে, এমন কিছু রোগ আছে যা অন্য কোনো চিকিৎসা পদ্ধতিতে অপারেশান ছাড়া কোনো চিকিৎসা নেই। সে রোগ হোমিওপ্যাথিতে আল্লাহর রহমতে রোগীকে শুধুমাত্র হোমিও মেডিসিনের সাহায্যে রোগ মুক্ত করা সম্ভব হয়। আমি প্রতি শুক্রবার সকাল ৯টা হতে দুপুর ১২টা পর্যন্ত নিজ অর্থায়নে আমার প্রতিষ্ঠান নাজমা হোমিও হল থেকে বিনামূল্যে গরীব অসহায় রোগীদের বিনামূল্যে রোগী দেখে ঔষধ সরবারহ করে থাকি।