তিস্তার বালুচরে হচ্ছে চাষাবাদ


প্রকাশের সময় : অক্টোবর ৩০, ২০২২, ১০:৪৫ অপরাহ্ন / ৩৬২
তিস্তার বালুচরে হচ্ছে চাষাবাদ

রিয়াজুল হক সাগর রংপুর জেলা প্রতিনিধিঃ

: চরাঞ্চলে কৃষকরা চাষাবাদে ব্যস্ত রয়েছেন। কেউবা খেতে কাজ করছেন, জমির আগাছা পরিষ্কার করছেন। আবার কেউ ট্রাক্টর দিয়ে জমি চাষ করছেন। তিস্তায় জেগে উঠেছে চর। ক্ষীণ প্রবাহে চলছে পানি। কৃষকরাও এখন ব্যস্ত হয়ে উঠেছেন চাষাবাদে। চারদিকে শুধু বালু আর বালু। আর সেই বালুর ওপর ফলছে ফসল। রংপুরের গঙ্গাচড়ার তিস্তা নদীর চরাঞ্চলে চলছে বিভিন্ন ফসলের চাষাবাদ। শুষ্ক মৌসুমে তিস্তার চরাঞ্চলে চাষ করে কৃষকরা লাভবান হবেন বলে আশা করছেন। ১০/১৫ বছর আগেও এসব স্থানে কোনো ফসল আবাদ হতো করা না। শুষ্ক মৌসুমে সারা বছর পতিত থাকত এসব জমি। সেখানে শুধু কাশবন বেড়ে উঠত। সেই কাশফুলই ছিল শুষ্ক মৌসুমের চরাঞ্চলবাসীর একমাত্র আয়। এখন সেখানে তৈরি হচ্ছে ফসলের খেত। কৃষকরা ফসল ফলাচ্ছেন। শুষ্ক মৌসুমেই কৃষকরা দুটি ফসল ঘরে তুলছেন। চরাঞ্চলের কৃষকরা এখন নিজেদের ভাগ্য পরিবর্তনে সচেষ্ট। তিস্তার চরে এখন ধান, গম, ভুট্টা, তামাক, আলু, বাদাম, ডাল ও কুমড়াসহ অন্যান্য ফসল আবাদ হচ্ছে। ব্যস্ত সময় অতিবাহিত করছেন তারা। গংগাচড়া উপজেলার কোলকোন্দ গ্রামের মাহবুব এ বছর পাঁচ বিঘা জমি লিজ নিয়ে আগাম ধান লাগিয়েছেন। দুই বিঘা জমিতে আলু লাগিয়েছেন। উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ শরিফুল ইসলাম জানান, তিস্তার চরাঞ্চলের কৃষকরা এখন অনেক সচেতন। উপযুক্ত প্রশিক্ষণ পেলে তারা আরো অনেক সাফল্য লাভ করবেন।