নীলফামারীতে স্কুল চলাকালীন সময়ে স্কুল ড্রেস পরে পার্কে আড্ডা, পুলিশ কর্তৃক  অভিভাবকের কাছে  হস্তান্তর


প্রকাশের সময় : অক্টোবর ৩১, ২০২২, ১০:৪৩ অপরাহ্ন / ৩৮৭
নীলফামারীতে স্কুল চলাকালীন সময়ে স্কুল ড্রেস পরে পার্কে আড্ডা,  পুলিশ কর্তৃক  অভিভাবকের কাছে  হস্তান্তর

 

 

মোঃ সামিউল আলম সায়মন নীলফামারী সদর প্রতিনিধিঃ
নীলফামারীতে স্কুলড্রেস পরিহিত অবস্থায় বিভিন্ন বাগান, ট্যানেল পাড় ও নির্জন স্থানে আড্ডা দেওয়ার সময় বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ১৩ শিক্ষার্থীকে অভিভাবকের হাতে তুলে দেন । এদের মধ্যে ৭ জন মেয়ে ও ৬ জন ছেলে। জেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে তাদের নিয়ে আসা হয়। পরে তাদের থানা হেফাজতে নিয়ে অভিভাবকদের হাতে তুলে দেয় সদর থানা পুলিশ।

নীলফামারী চেম্বার অব কর্মাস এন্ড ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি প্রকৌশলী শফিকুল আলম ডাবলু বলেন জেলা পুলিশ সুপারের এই মহতি উদ্বেগ কে সাধুবাদ জানাই এবং এই সর্তক বার্তার ফলে শিক্ষার্থীরা লেখাপড়ায় মনোযোগী হবেন।

ডিবি ওসি খঃমো. আখেরুজামান বলেন, পুলিশ সুপারের নির্দেশে আমরা এই অভিযান পরিচালনা করি। স্কুল ফাঁকি দিয়ে ট্যানেল পাড়, বাগানবাড়ি ও নির্জনস্থানে আড্ডা দেওয়ার সময় ১৩ জন শিক্ষার্থীকে সদর থানায় রাখা হয়।

 

নীলফামারী সদর থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুর রউপ বলনে, স্কুল ফাঁকি দিয়ে ঘোরাঘুরি করায় তাদের থানায় নিয়ে আসা হয়। পরে বিকালে থেকে সন্ধ্যা র্পযন্ত তাদের অভিভাবকদের ডেকে ভবিষ্যতে এরকম কাজ না করা র্শতে তাদের হাতে দেওয়া হয়।

সাধুবাদ জানিয়ে অভিভাবকরা বলেন, আমাদের সকলকে সচেতন হওয়া উচিত সেই সাথে স্যারের এই মহতি কাজের ফলে আর কোন শিক্ষার্থী ক্লাস ফাঁকি দিয়ে আড্ডা দিতে পারবে না।

জানতে চাইলে জেলা পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমান পিপিএম বলেন, স্কুল ফাঁকি দিয়ে অবাধে চলাফেরা বন্ধ করা ও শিক্ষার মান যেন ক্ষুণ্ন না হয় সেজন্য এ অভিযান পরিচলনা করা হয়েছে। সবার সহযোগিতায় এ অভিযান অব্যাহত থাকবে।