বিলাইছড়িতে দীপংকর তালুকদার বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে চালু করা হয়েছে ডিজিটাল ল্যাব


প্রকাশের সময় : নভেম্বর ৭, ২০২২, ২:৫২ অপরাহ্ন / ৩৯০
বিলাইছড়িতে দীপংকর তালুকদার বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে চালু করা হয়েছে ডিজিটাল ল্যাব

 

সুজন কুমার তঞ্চঙ্গ্যা।

বিলাইছড়ি (রাঙ্গামাটি) প্রতিনিধিঃ-বিলাইছড়িতে দীপংকর তালুকদার বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে চালু করা হয়েছে শেখ রাসেল ডিজিটাল ল্যাব বলে জানান বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক দীলিপ কান্তি তঞ্চঙ্গ্যা।

এতে সাধারণ পাঠদানের পাশাপাশি ডিজিটাল প্রযুক্তি পদ্ধতিতে পাঠ দানের সুযোগ তৈরি হলো শিক্ষার্থীদের। এতে বেশ খুশিও বিদ্যালয়ের ছাত্রী ও অভিভাবকরা।তাই পাহাড়ে শিক্ষার মান উন্নয়নে আরো একধাপ এগিয়ে গেলো।

সোমবার (০৭ নভেম্বর) সরাসরি কথা হলে তিনি আরও জানান,২০১৭ সালে বিদ্যালয়টি স্থাপিত হয় এবং ম্যানেজিং কমিটি কর্তৃক পরিচালিত হয়ে আসছে নিয়মিত।বর্তমানে ১০০ জনের অধিক ছাত্রী রয়েছে।

তাই গত ১৮ অক্টোবর আইসিটি ডিভিশন কর্তৃক শেখ রাসেল ডিজিটাল ল্যাব ২য় পর্যায় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা ভার্চুয়ালী উদ্বোধন করলে সারা দেশের ন্যায় এই বিদ্যালয়ে একাডেমিক ভাবনে এই কার্যক্রম উদ্বোধন হয়।

তাই এই বিদ্যালয়ে সাধারণ পাঠ দানের পাশাপাশি ল্যাবে রয়েছে – ৩২ সিট বিশিষ্ট ১৮ টি কম্পিউটার, ৫২ ইঞ্চি স্মার্ট টিভি অভিজ্ঞ ও দক্ষ শিক্ষক দ্বারা পরিচালিত আধুনিক এই কম্পিউটার ল্যাবটি। বর্তমানে আরো বৃদ্ধির লক্ষ্যে উপরে সম্প্রসারণ কার্যক্রম চলমান রয়েছে। এছাড়াও রয়েছে নৌ পথে ছাত্রীরা বিদ্যালয়ে আসা-যাওয়ার জন্য কানাডা ও ইউএনডিপির সহায়তায় জেলা পরিষদ কর্তৃক প্রদত্ত পরিবেশ বান্ধব সোলার মটরে চালিত ফাইবার নিরাপদ বোট। রয়েছে পানি ও বিদ্যুৎ সহ অন্যান্য সুবিধা এবং চালুর জন্য অপেক্ষা মান হোস্টেল।

 

গার্ল স্কুলের ছাত্রী ইন্দ্রশোভা চাকমা ও চম্পা চাকমা সাথে কথা হলে তারা জানান,এখানে পাঠ দান পদ্ধতি খুবই ভালো, তাই আমরা এখানে ভর্তি হয়ে পড়া- লেখা করছি একই ভাবে অভিভাবকরাও একই কথা বলেন।

উপজেলায় বর্তমানে কোনো মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার নাই। তাই মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসের উপজেলা একাডেমিক সুপারভাইজার বিভিষন চাকমার সঙ্গে মুঠোফোন কথা হলে তিনি জানান, শিক্ষার গুণগতমান উন্নয়নের লক্ষ্যে তথ্য যোগাযোগ প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের (বিভাগের) মাধ্যমে ICT ল্যাব প্রদান করা হয়েছে।

এইসব বিষয়ে প্রতিষ্ঠাতা ও বর্তমান সভাপতি রাঙ্গামাটি জেলা পরিষদ সদস্য রেমলিয়ানা সঙ্গে কথা বললে তিনি জানান,বিলাইছড়ি উপজেলা একটি প্রত্যন্ত এবং দূর্গম উপজেলা যা জেলা সদর হতে অনেকটা বিচ্ছিন্ন এবং রাস্তা – ঘাট ও যোগাযোগ ব্যবস্থা সুবিধা নয়।মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর আন্তরিকতায় রাস্তা – ঘাট হচ্ছে – হবে। বিশেষ করে নারী শিক্ষা অন্যান্য উপজেলা তুলনায় অনেকটা পিছিয়ে।

তাই দীপংকর তালুকদার এমপির পৃষ্ঠপোষকতায় নারী শিক্ষাকে এগিয়ে নেওয়া জন্য ২০১৭ সালে স্থাপিত হয় এবং জেলা পরিষদের সহায়তায় অদ্যবধি চলমান রয়েছে। চালু করা হয়েছে এবারে আইসিটি সেক্টরের কম্পিউটার ল্যাবও। এছাড়াও দূর্গম এলাকা হিসেবে যাদের থাকার ব্যবস্থা নাই তাদের জন্য হোস্টেলের ব্যবস্থাও করা হচ্ছে। স্কুলটি দ্রুত প্রতিষ্ঠিত করতে কোন বিদ্যোৎসাহী,গণ্যমান্য ও সচ্ছল ব্যক্তি যদি এগিয়ে আসে তাহলে দ্রুত প্রতিষ্ঠিত করতে সুবিধা হবে।

মূলতঃ সারা দেশে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বিশেষায়িত কম্পিউটার ও ভাষা প্রশিক্ষণ ল্যাব স্থাপনে মাধ্যমে শিক্ষায় আইসিটি ব্যবহারের সুযোগ তৈরি পূর্বক শিক্ষার গুণগতমান বৃদ্ধি এবং সফটওয়্যার ভিত্তিক ভাষা, শিক্ষা প্রয়োজনীয় অবকাঠামো স্থাপনে মাধ্যমে প্রশিক্ষণ প্রদান ও দক্ষ মানব সম্পদ উন্নয়ন করার মূল লক্ষ্য।

তাই পড়তে কে না চাইবে এমন একটি বিদ্যালয়ে।