লালমনিরহাট জেলা মহিলা আওয়ামী লীগ-এর ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন-২০২২ অনুষ্ঠানে খাবারের প্যাকেট না পেয়ে কর্মীদের ক্ষোভ!


প্রকাশের সময় : অক্টোবর ২৬, ২০২২, ২:০০ অপরাহ্ন / ৬৯২
লালমনিরহাট জেলা মহিলা আওয়ামী লীগ-এর ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন-২০২২ অনুষ্ঠানে খাবারের প্যাকেট না পেয়ে কর্মীদের ক্ষোভ!

লালমনিরহাট প্রতিনিধি: লালমনিরহাট জেলা পরিষদ অডিটোরিয়ামে দীর্ঘ ৬বছর পর মঙ্গলবার (২৫ অক্টোবর) লালমনিরহাট জেলা মহিলা আওয়ামী লীগ-এর ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন-২০২২ অনুষ্ঠিত হয়েছে। তবে খাবারের প্যাকেট না পাওয়ায় অনেক কর্মী ক্ষুব্ধ হন। তাদের চেঁচামেচির বেশ কিছু ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে।

ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে সভাপতি অ্যাড. সফুরা বেগম রুমী, সিনিয়র সহ-সভাপতি বেগম জিল্লে আরশে এলাহী, সাধারণ সম্পাদক মোহসেনা বেগম মিনা ও যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. মাসুমা ইয়াসমিন এর নাম ঘোষণা করা হয়।

সম্মেলনে লালমনিরহাট জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাড. সফুরা বেগম রুমী-এঁর সভাপতিত্বে সহ-সভাপতি মোহসেনা বেগম মিনা-এঁর সঞ্চালনায় উদ্বোধক ছিলেন বাংলাদেশ মহিলা আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব সাফিয়া খাতুন। প্রধান অতিথি ছিলেন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের সমাজ কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী আলহাজ্ব নুরুজ্জামান আহমেদ এমপি। প্রধান বক্তা ছিলেন বাংলাদেশ মহিলা আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক মাহমুদা বেগম কৃক। বিশেষ অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ লালমনিরহাট জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. মতিয়ার রহমান। সম্মানিত অতিথিবৃন্দ ছিলেন বাংলাদেশ মহিলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক দিলরুবা জামাল শেলি, শেখ আনার কলি পুতুল, সুরাইয়া বেগম ইভা, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক রাজিয়া মোস্তফা, সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক রোকেয়া প্রাচী, কৃষি বিষয়ক সম্পাদক অ্যাড. নাজমা আফরিন সুমনা, সদস্য কনা জব্বার, শাহিদা চৌধুরী তন্বী, জাকিয়া খাতুন, আঞ্জুমান আরা বন্যা, হাবিবা ইসলাম হ্যাপি, সৈয়দা নুসরাত রাসুল তানিয়া। বক্তব্য রাখেন পাটগ্রাম উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সাজেদা বেগম, হাতীবান্ধা উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের রশিদা বেগম, কালীগঞ্জ উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি (ভারপ্রাপ্ত) নাজনীন রহমান, আদিতমারী উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক লাইলী বেগম, লালমনিরহাট সদর উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক লতিফা বেগম লাকী, সভাপতি রশিদা বেগম, লালমনিরহাট জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাড. মাসুমা ইয়াসমিন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মেহেরুন নাহার মেরী, ফরিদপুর জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হাবিবা ইসলাম হ্যাপী, বাংলাদেশ মহিলা আওয়ামী লীগের সদস্য আঞ্জুমান আরা বন্যা, জাকিয়া খাতুন, কনা জব্বার, সাংগঠনিক সম্পাদক সুলতানা রাজিয়া পান্না, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শিরিন রুকসানা, সহ-সভাপতি আজিজা খানম কেয়া প্রমুখ। এ সময় লালমনিরহাট জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি সিরাজুল হক, নজরুল হক পাটোয়ারী ভোলা, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক গোলাম মোস্তফা স্বপনসহ লালমনিরহাট জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে সম্মেলনে আসা অনেক নারী কর্মী খাবারের প্যাকেট পাননি বলে অভিযোগ উঠেছে। সম্মেলন শেষে সেখানে অনেককে চেঁচামেচি করতে দেখা যায়। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া এ সংক্রান্ত ভিডিও চিত্রের বিষয়ে লালমনিরহাট জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাড. সফুরা বেগম রুমী সাংবাদিকদের বলেন, আমি এ ধরনের ভিডিও চিত্র দেখিনি। এমন হওয়ার কথা নয়, পর্যাপ্ত পরিমাণে খাবার প্যাকেট ছিল, সেগুলো বিতরণ করা হয়েছে। কারও গাফিলতি বা দোষ পাওয়া গেলে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

উল্লেখ্য যে, সম্মেলন শেষে বিকেলের দিকে অতিথিরা চলে যাওয়ার পর অডিটোরিয়ামের দুটি গেট বন্ধ করে জেলার বিভিন্ন উপজেলা থেকে আগত মহিলা কর্মীদের খাবার দেওয়া হয়। কিন্তু খাবার পরিবেশনে অনিয়মের অভিযোগ তুলে খাবার না পাওয়ায় হট্টগোল করেন কর্মী। কর্মীরা বিক্ষোভ শুরু করলে পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে উঠে। তাদের অভিযোগ, সকাল থেকে সারাদিন না খেয়ে সম্মেলন স্থলে উপস্থিত থাকলেও কোন খাবার পাননি। পরে খাবার না পেয়েই অনেকেই চলে যান।